কবিতার ভর (২)

সফলতার সাথে সবাই সামনে চলে যায়,
শুধু আমি পিছনে পড়ে থাকি,
সময় আমার সামনে বদলে, আমি বদলাতে পারি না,
এর নামই হয়তো বিফলতা?
 
পরিবর্জন পরিপ্রেক্ষিতে মন পরিবর্ধক হতে চায়,
পরিবাদে পরিবর্তন হয় না,
জীবন থামলেও সময় থামে না, পৃথিবী ঘুরতে থাকে।
 
ভালো থাকতে হয়, চেষ্টা না করলে পলকে মন্দ হবে,
মন সুন্দর হলে সব সুন্দর,
মৃত্যুকে আলিঙ্গন করলে মিলনে দুঃখ লাঘব হবে।
 
 
পরিবেশ পরিবর্তনশীল এবং মানুষের মনে লোভ আছে,
সাগরে নুন এবং মুক্তা জন্মে দেখে বিপাকে পড়তে চাই না,
সেই সাগরে ভাসতে চাই যে সাগরে জল নেই তবে দয়া আছে।
 
নিন্দা করে নিন্দার্হ হতে চাই না,
নিন্দকরা নিন্দা করে নিন্দনীয় হয়,
নিন্দনে নিনু হলে সত্তা নিরানন্দ হবে,
গুণনিধি হতে চেয়ে মন নিনু হলো নিন্দিত।
 
নুনে জরজর খাবার খেয়ে মন বলেছিল,
হে দেহ তুমি কেন জরাজীর্ণ হলে?
জবাবে বলেছিলাম, জরদ্গব হাম্বা ডাকতে পারে না,
তার জঠরে জোর থাকে না,
জর্দা বেশি কড়া, খালি পেটে চিবালে কলিজা মোচড়ায়,
জরায় জড় হলে জরঠরা নড়চড়া করতে পারে না।
 
প্রেম সরালে বাতাসে শ্বাসকষ্ট হয়,
আত্মার আত্মীয়কে ভুলে থাকা যায় না,
তাদের জন্য দোয়া করলে আত্মা প্রশান্ত হয়।
ভালোবাসা চাইলে ভালোবাসা দিতে হয়,
ভালোবাসায় বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে,
সমস্যা হলো, দমবাজরা দমননীতিতে বিশ্বাসী।
 
স্বত্ব মো.আ.হা

One Reply to “কবিতার ভর (২)”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *