মাথা নষ্টের মন্ত্র

কবিতারা এখন বাতাসে বসে গুনগুন করে গান গায়,
কউতররা দুলায় বসে দুল খায়।
কবিদের হাবভাব বুঝি না,
কউতরের কল্লায় গুল্লি মেরে বলে, আজ কবিতা লিখব।
কবিতা লিখে কবিরা সফলও হচ্ছে,
তবে বেশির ভাগ অভাগা, পাতে ভাত পড়ে না।
কবি হতে হলে প্রশান্ত হতে হয়, কবিদের পেট পিঠ নেই।
কল্পনার কল্পনায় কাল্পনিক সব কল্পনা,
আজ কাল জান ডাকলে জানরা ধমকায়।
অনন্তাকাশে মেঘ, পরিবেশ খুব সুন্দর,
জংলায় সোনার হরিণ থাকে, চাইলে ধরা যায় না,
তবে চাইলে পাপমোচন হয়,
শাপমোচন সহজে না হওয়ার কারণ মানুষের মনে দাগা লাগে।
তিন সত্যের এক সত্য মিথ্যা হলে দাঁতে ব্যথা হয়,
তোমারও লাগিয়া মনে আনচান আনচান করে,
মনকে বাঁধার জন্য পাট দিয়ে দড়া বানিয়েছি,
এখানে আবেগপ্রবণ হয়ে লাভ হয় না।
যন্ত্রের ভিতর আন্তরাত্মা নেই,
স্বপ্ন নিয়ন্ত্রণ করলে বাস্তব যান্ত্রিক হয়।
হে পাঠক, তব মন্তব্যে মম প্রাণবন্ত হয়েছি,
সবার মঙ্গল হোক, এই কামনা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *