Blog

ব্লগ কী এবং কেন ব্লগিং করা হয়?

উত্তরের জন্য প্রথম ব্লগ শব্দের অর্থ জানতে হবে।

ব্লগ শব্দের অর্থ ইথারে খাতার পাতা। যে পাতায় দৈনিক নতুন কিছু লেখা হয়। কেউ কবিতা লেখে, কেউ মতামত প্রকাশ করে। কেউ ছবি প্রকাশ করে। লেখকরা নিজের লেখা প্রকাশ করে। মুক্তচিন্তা অথবা মুক্তমনা বলতে কিছু নেই। বাকস্বাধীনতা থাকলেও অন্যকে বকাবকি করার অধিকার কারোর নেই।
ব্লগিং শুরু করারাগে জ্ঞাতব্য শব্দ ….
ধর্মান্ধ শব্দের অর্থ স্বধর্মে অন্ধবিশ্বাসী এবং পরধর্মদ্বেষী।
ধর্মের ষাঁড় শব্দের অর্থ ধর্মের নামে উৎসর্গীকৃত মুক্ত ষাঁড়।
ধর্মাত্মা (-ত্মন্) বিণ. বি. অতিশয় ধার্মিক। ধর্মাধর্ম বি. ধর্ম ও অধর্ম, পাপ ও পুণ্য। ধর্মাধি-করণ বি. 1 বিচারালয়; 2 বিচারক। ধর্মাধি-করণিক বি. বিচারক। ধর্মাধি-কার বি. 1 বিচারে অধিকার; 2 বিচারকের পদ বা কাজ। ধর্মাধি-কারী (-রিন্) বি. বিচারক। ধর্মাধ্যক্ষ বি. ধর্মসংক্রান্ত বিষয়ের প্রধান সরকারি তত্ত্বাবধায়ক; প্রধান বিচারপতি। ধর্মানু-গত, ধর্মানু-মোদিত, ধর্মানু-যায়ী (-য়িন্) বিণ. ধর্মসংগত, ধর্মসম্মত; ন্যায়সংগত; শাস্ত্রবিহিত।
ধর্মান্তরিত বিণ. অন্য ধর্ম গ্রহণ করেছে এমন (কবি মধুসূদন দত্ত ধর্মান্তরিত হয়ে মাইকেল নাম নিয়েছিলেন)।
ধর্মারণ্য বি. তপোবন। ধর্মার্থ বি. ধর্ম ও অর্থ।
ধর্মার্থে ক্রি-বিণ. ধর্মের জন্য।
ধর্মিষ্ঠ বিণ. ধর্মের প্রতি নিষ্ঠাশীল, অত্যন্ত ধার্মিক। স্ত্রী. ধর্মিষ্ঠা।
ধর্ম লক্ষণ বি. ধার্মিকতার দশটি লক্ষণ, যথা ধৃতি ক্ষমা আত্মসংযম সততা পরিচ্ছন্নতা ইন্দ্রিয়দমন ধী বিদ্যা অক্রোধ এবং সত্যপ্রিয়তা।
শমর্মিক্ষা বি. ধর্মবিষয়ক শিক্ষা; যে-শিক্ষায় মনে ধর্মভাবের বা ধর্মজ্ঞানের উদয় হয়। শীল বিণ. ধার্মিক। সংগত বিণ. ধর্মশাস্ত্র বা নীতির সঙ্গে সংগতি আছে এমন।
ধর্মচারী (-রিন্), ধর্মাচারী (-রিন্) বিণ. ধর্মচর্যা করে এমন, ধর্মকর্মে ব্রতী, ধার্মিক।
ধর্মচিন্তা বি. ধর্মবিষয়ক চিন্তা বা ধ্যান, আধ্যাত্মিক চিন্তা। চ্যুত বিণ. ধর্ম বা সততার পথ থেকে ভ্রষ্ট। জীবন বি. ধর্মব্রতীর জীবন; সাধুর জীবন।
ধর্মজ্ঞ বিণ. ধর্মতত্ত্ব জানে এমন।

আবার ব্লগিং শুরু করেছি।

এবার আমি আমার মনোমতো ব্লগিং করব। কেউ আর আমার পোস্ট ডিলিট করতে পারবে না। প্রথম আলো অথবা বাঁধ ভাঙার আওয়াজের সঞ্চালকরা আমার অনেক পোস্ট ডিলিট করেছে। ইসলাম ধর্ম সম্বন্ধে আজেবাজে লিখে পোস্ট করলে ওরা লটকিয়ে রাখে। প্রতিবাদ করে পোস্ট করলে ওরা ডিলিট করে। রাজাকারের নামে আলিমওলামাকে গালাগালি করলে ওরা গলাগলি করে আল্লাহওয়ালাকে গালমন্দ করে। প্রতিবাদ করলে পোস্ট ডিলিট করে, ব্যান করে। এবার দেখব কে আমার পোস্ট ডিলিট করে। নীরবে অনেক সহ্য করেছি। এবার আমি তা বলব যা বাস্তবে দেখেছি‌। সত্যি অসহায়বোধ করতাম, ওরা যখন মুক্তমনা হয়ে মুক্তচিন্তার নামে মনগড়া গল্প লিখে উল্লাস করতো। এই দুনিয়ায় সত্য কিছু থেকে থাকলে তা হলো ইসলাম। নামে মানুষ মুসলমান হয় না। সত্য মুসলমান হতে হলে আল্লাহর আদেশ নিষেধ মেনে রাসূল (সঃ) কে অনুসরণ করতে হয়। মাথায় পাগড়ি বেঁধে মুসলমান হলে শিখরা তালিকার প্রথমে থাকবে। তাদের দাঁড়ি খুব লম্বা এবং পাগড়ি খুব বড়। আমি পাগড়ি বাঁধি না এবং আমার দাড়ি লম্বা নয় তবে সত্য মুসলমান হওয়া জন্য ত্যাগ সাধনা করি। কিংবদন্তি ব্লগার হতে চাই। দোয়া কাম্য।

ব্লগ সবার জন্য নয় এবং সবাই ব্লগিং করতে পারে না। ব্লগার হত হলে শিখতে আগ্রহী এবং সহনশীল হতে হয়।

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *